কালিহাতীতে পুর্বপুরুষের পত্তনকৃত জমিতে ঘর তুলতে প্রতিবেশীর বাধা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার দ্বিমুখা গ্রামে আ.খালেক তার পুর্বপুরুষের পত্তনকৃত জমিতে ঘর তুলার জন্য মাটি কাটতে যায়। আর ওই ঘর তুলতে বাধা দেয় প্রতিবেশী একটি পরিবার। ঘর তুলতে না পারায় মাথা গোজার ঠাই পেতে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে আ. খালেকের পরিবার।

এ ব্যাপারে গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারী) আ. খালেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সহকারি কমিশনার ভূমি, পুলিশ সুপার টাঙ্গাইল, র‌্যাব-১২ সিপিসি-৩ কোম্পানি কমান্ডার টাঙ্গাইল বরাবর প্রতিবেশী মৃত সোনাউল্লাহ মন্ডলের ছেলে হানিফ মন্ডল(৬৫), কাশেম মন্ডল(৭০), কাশেম মন্ডলের ছেলে চান্দু মন্ডল(৩৫), চিনি বেগম(৬০) কে অভিযুক্ত করে  একটি লিখিত আবেদন করেছেন আ. খালেক।

জানাগেছে,আ.খালেকের পুর্বপুরুষরা তৎকালিন জমিদারের নিকট হতে ১৩৫১ খৃ:(সাবেক দাগ২২০/৩২০) ৪৪ শতাংশ জমি পত্তন নেয়। আ. খালেক বংশপরম্পরায় ওই জমিতে  বসবাস ও ভোগদখল করে আসছেন।যা বর্তমানে ১/১ খতিয়ানভূক্ত। সস্প্রতি আ.খালেক ঘর তুলার জন্য ওই জমিতে মাটি কাটতে গেলে হানিফ মন্ডল,কাশেম মন্ডল, চান্দু মন্ডল,চিনি বেগম মিলে বাধাদেয়। এ সময় তারা খালেকের বড় ভাই মালেক,এবং মালেকের স্ত্রী রাবেয়াকে পিটিয়ে আহত করে।

এ ব্যপারেও কালিহাতী থানায় একটি অভিযোগ করেন। এর পর মাথা গোজার ঠাই ও সুষ্টু বিচারে আশায় বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেন আ. খালেক। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.নাজমুল হুসেইন জানান, একটি অভিযোগ পেয়েছি, কালিহাতী থানাকে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান জানান, তদন্তসাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap