দুই বোলারের তোপের মুখে ১১৫ রানে থামল বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিনিধিঃ ব্যর্থতার ডালি সাজিয়ে বসলেন টপ অর্ডারের ব্যাটাররা। আগের ম্যাচে তবু লিটন দাসের ব্যাট হেসেছিল বলে মাঝারি সংগ্রহ পেয়েছিল বাংলাদেশ।

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন স্বাগতিক দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

চোট কাটিয়ে এই ম্যাচ দিয়ে বাংলাদেশ দলে ফিরেছেন মুশফিক। এটি তার শততম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। তিনি ফেরায় একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন আগের ম্যাচেই টি-টোয়েন্টিতে অভিষিক্ত ইয়াসির আলী রাব্বি। অন্যদিকে একাদশে দুইটি পরিবর্তন নিয়ে নামে আফগানরা। ইনজুরিতে পড়া মুজিব-উর-রহমান ও মোহাম্মদ কায়েসের জায়গায় এসেছেন উসমান গণি ও শরাফুদ্দিন।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। আগের ম্যাচে অভিষেক হওয়া ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার আজ বিদায় নিয়েছেন ৪ রান করেই। এরপর ১০ বলে ১৩ রান করে আফগান পেসার আজমতুল্লাহ ওমরাইজ্যের বলে তুলে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন আগের ম্যাচের নায়ক লিটন (১৩)। কিছুক্ষণ পর বিদায় নেন ধুঁকতে থাকা নাঈম শেখও। শুরু থেকেই নড়বড়ে ব্যাটিং করতে থাকা নাঈম ১৯ বলে ১৩ রান করে করিম জানাতের সরাসরি থ্রোয়ে রান আউট হয়ে ফিরেছেন।

নাঈমের পর দ্রুত ফিরেছেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও। ওমরাজাইয়ের বলে উইকেটরক্ষক রহমানুল্লাহ গুরবাজের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে সাকিব ১৫ বলে করেছেন মাত্র ৯ রান। দলীয় ৪৫ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশ প্রথম ১০ ওভারে তুলতে পারে মাত্র ৪৭ রান। প্রচণ্ড চাপের মুখে বাংলাদেশকে ঘুরে দাঁড়ানোর পথ দেখাচ্ছিলেন মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ। দুজনে মিলে ৩১ বলে ৪৩ রানের জুটি গড়েন। কিন্তু ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিয়েও মাহমুদউল্লাহ আফগান স্পিনার রশিদ খানের বলে এলডব্লিউ হয়ে ফেরার আগে ১৪ বলে ২১ রান করেন।

দলীয় রান ১০০ ছোঁয়ার আগেই বিদায় নেন মুশফিকও। শততম ম্যাচে ইনিংসের হাল ধরলেও ২৫ বলে ৩০ রান করে আফগান পেসার আজমতুল্লাহ ফারুকির বলে মোহাম্মদ নবির হাতে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন তিনি। এরপর মেহেদি হাসানকে শূন্য রানেই বিদায় করেন ফারুকি। বাঁহাতি ব্যাটার আফিফ হোসেনও (৭) ব্যর্থ। ওমরজাইয়ের তৃতীয় শিকার হয়ে ফেরেন তিনি। এরপর ইয়র্কারে বোল্ড হয়ে ফারুকির তৃতীয় শিকান হন শরিফুল ইসলাম (০)। শেষদিকে ৫ বলে ৬* রান করে দলীয় সংগ্রহ ১১৫-তে নিয়ে যান মোস্তাফিজ।

বল হাতে আফগানিস্তানের ওমরজাই ও ফারুকি ৩টি করে এবং নবি ও রশিদ ১টি করে উইকেট নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap