মাভিপ্রবিতে বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক আলোচনা, আবৃত্তি ও রচনা প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীভিত্তিক আলোচনা, আবৃত্তি ও রচনা প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের ইএসআরএম বিভাগের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন একুশে পদকপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুক।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. ফরহাদ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এআরএম সোলাইমান।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠান ব্যবস্থাপনা কমিটির আহবায়ক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ ও পরামর্শদান কেন্দ্রের পরিচালক ইএসআরএম বিভাগের  প্রফেসর ড. এএসএম সাইফুল্লাহ।

প্রধান অতিথি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আমাকে তিনটা জিনিস দিয়েছেন:

১ম: বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধের ডাক দিয়েছেন, আমি মুক্তিযুদ্ধ করেছি। লক্ষ মুক্তিযোদ্ধাদের আমি একজন, নতুন করে আর কেউ মুক্তিযোদ্ধা হতে পারবে না।

২য়: স্বাধীনতার পর এই দেশের সংবিধান রচনা জন্য গণপরিষদের সদস্য। বাংলাদেশের সংবিধান আমরা রচনা করেছিলাম, এর চেয়ে গৌরব আর কি হতে পারে।

৩য়: বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথম যে পার্লামেন্ট হয়, তিনি আমাকে তার সদস্য বানিয়েছিলেন।

আলোচনা শেষে অতিথিবৃন্দ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। এরপর এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap