ছয় বছর পর দেশের মাটিতে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন তামিম

ক্রীড়া ডেস্কঃ ছয় বছর পর দেশের মাটিতে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন তামিম ইকবাল। সবশেষ ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মিরপুরে ১০৪ রান করেছিলেন বাঁহাতি ওপেনার।

এ সময়ে দেশে ও বাইরে মিলিয়ে কেবল একটি সেঞ্চুরিই করেছেন তামিম। ২০১৯ সালে নিউ জিল্যান্ডের হ্যামিল্টনে ১২৬ রান। তবে একাধিকবার সেঞ্চুরির খুব কাছে গিয়ে পথ ভুলেছেন তামিম। ২০২১ সালে পাল্লেকেল্লেতেই স্বাগতিকদের বিপক্ষে তামিম দুইবার আউট হয়েছেন নার্ভাস নাইন্টিজে। পরপর দুই ইনিংসে তামিম ৯০ ও ৯২ রানে ফিরে আসেন সাজঘরে।

এবার কোনো ভুল না করে, পথ না ভুলে সেঞ্চুরির ঠিকানা পৌঁছেছেন। তুলে নেন ক্যারিয়ারের দশম সেঞ্চুরি। মুমিনুলের পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরির দুই অঙ্কে প্রবেশ করলেন বাঁহাতি ওপেনার।

ধ্রুপদী ব্যাটিংয়ে তামিম পেয়েছেন সেঞ্চুরি। বোলারদের কোনো সুযোগ না দিয়ে, প্রতিপক্ষকে চোখ রাঙানি দিয়ে ২২ গজে ফুলঝুরি ছুটিয়েছেন। সেঞ্চুরিতে পৌঁছাতে খেলেছেন ১৬২ বল। বাউন্ডারি মেরেছেন ১২টি। আগের দিন ৩৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। আজ দিনের শুরু থেকেই ছিলেন সাবলীল। আগ্রাসী ব্যাটিং করলেও নিজের ওপর ছিল পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ।

পায়ের ব্যবহারে দক্ষতা দেখিয়ে দারুণ সব ড্রাইভ খেলেছেন। অন সাইডে পায়ের উপরের বল খেলেছেন স্বাচ্ছন্দ্যে। বেশ কিছুদিন ধরেই ভেতরে ঢোকানো বলে সমস্যা হচ্ছিল। থিতু হয়েও ফিরছিলেন মিস টাইমিংয়ে। তবে নিজ শহরে সব প্রতিকূলতা পেরিয়ে তিন অঙ্কের ম্যাজিকাল ফিগারে দেশসেরা ওপেনার। ঘরের মাঠে যা ষষ্ঠ এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১২ টেস্টে প্রথম সেঞ্চুরি।

এদিকে এ ইনিংস খেলার পথে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডে মুশফিককে ছাড়িয়ে গেছেন তামিম। আরেকটি রেকর্ড তাকে ডাকছে। ১৫২ রান করলেই দেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ৫ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলবেন। চা বিরতির আগে তিনি আরেকটি কীর্তি গড়েন, ১৫ বছরের লম্বা টেস্ট ক্যারিয়ারে পঞ্চমবার দুইশ বল মোকাবিলা করলেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap