বাসাইলে চাচীর গোসলের নগ্ন ভিডিও ধারণ করে প্রতারণার অভিযোগ ভাতিজার বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের বাসাইলে চাচীর গোসলের নগ্ন ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার মাধ্যমে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে ভাতিজা শরিফুল ইসলাম শরীফ (২৮) বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী ওই নারী বাসাইল থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মান্দারজানি গ্রামের জামাল মিয়ার ছেলে শরিফুল ইসলাম শরীফ (২৮) কৌশলে তার চাচীর গোসলের নগ্ন ভিডিও ধারন করে। পরে ওই ভিডিও হৃদয় খান নামে একটি ইমো আইডি থেকে তার সৌদি প্রবাসি চাচা রফিকুল ইসলামকে পাঠায়।পরে সে দুই লাখ টাকা না দিলে ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে ভাইরাল করে দেওয়া হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয়। বিষয়টি তিনি তার স্ত্রী শেফালীকে জানায়। পরে শেফালী বাদী হয়ে বাসাইল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

সরেজমিনে জানা যায়, ভূক্তভোগী ওই নারীর গোসলখানাটি অভিযুক্ত শরীফের ঘরের উত্তর পাশে অবস্থিত এবং দরজা বিহীন। নগ্ন ওই ছবিটির ফ্রেম বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ছবিটি অভিযুক্ত শরীফের ঘর থেকে তোলা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, অভিযুক্ত শরীফের বিরুদ্ধে ইতোপূর্বে চুরিসহ নানা অপকর্মে জড়িত থাকায় এলাকায় একাধিক গ্রাম্য সালিশ হয়েছে।

ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, শরিফ ইতোপূর্বে আমার ঘটে ঢুকে খাবারের সাথে বিষ জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে আমারদের সবাইকে মেরে ফেলারও চেষ্টা করেছিল। শুধুমাত্র ভাতিজা বলে এতোদিন সকল অত্যাচার সহ্য করেছি। এখন ও আমার ইজ্জতের উপর হাত দিয়েছে। আমি ওর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।এ বিষয়ে সৌদি প্রবাসী রফিকুল ইসলাম রফিক মুঠোফোনে বলেন, যে ইমো আইডি হৃদয় খান থেকে আমাকে ভিডিওটি পাঠানো হয়েছে ওই একই আইডি থেকে আমার ভাতিজা শরীফ আমার সাথে ইতোপূর্বে যোগাযোগ করেছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শরিফুল ইসলাম শরীফ জানান, তাদের বাড়িতে পুলিশ এসেছিল। তিনি পুলিশকে মোবাইল ফোনটি দিয়েছেন। তার চাচীর সাথে তিনি অমন কাজ করতে পারেন না। অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেও দাবি করেন তিনি।

এ ব্যাপারে বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রয়োজনীয় উপাদান পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap