গোপালপুরে সূতী ভি এম স্কুলের শিক্ষক মাসুদ কতৃক ছাত্রীকে প্রহার

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের গোপালপুরে ক্লাসে ভুল বই নেওয়ায় নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর মাথায় আঘাত করার অভিযোগ উঠেছে রফিকুল ইসলাম ওরফে মাসুদ রানা নামে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় আহত ওই ছাত্রীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৪ মে) পৌর শহরের সূতী ভি এম সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আহত ছাত্রী মাতৃ আক্তার রিয়া জানায়, ভুলক্রমে ক্লাসে সাধারণ গণিত বইয়ের পরিবর্তে উচ্চতর গণিত বই নেওয়ার অপরাধে তাকে বকাঝকা শুরু করেন শিক্ষক। এরপর তোকে মেরেই ফেলবো বলে চিৎকার দিয়ে একটি শক্ত মলাটের বই হাতে নিয়ে তার মাথায় জোরে আঘাত করেন শিক্ষক রফিকুল ইসলাম ওরফে মাসুদ রানা।

এরপর অনেকক্ষণ বকাঝকা করার পর তাকে ক্লাসে চল্লিশ মিনিট দাঁড় করিয়ে রাখেন। একসময়ে প্রচণ্ড মাথা ব্যথায় সে বমি করতে করতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

দায়িত্বরত চিকিৎসক দেলোয়ার হোসেন জানান, ছাত্রীর মাথায় শক্ত কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। মাথার বাম দিকে ফুলে জখম হয়েছে। ভেতরে কতোটা রক্তক্ষরণ হয়েছে তা সিটি স্ক্যান ছাড়া বলা যাবে না।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজ মল্লিক আহত ছাত্রীকে দেখতে হাসপাতালে যান। তিনি জানান, কোনো শিক্ষার্থীকে শারীরিক বা মানসিক আঘাত করার অধিকার কারোর নেই। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap