গোপালপুরে হাসপাতাল থেকে রোগী নিখোঁজের পর নদী থেকে লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের গোপালপুরে হাসপাতাল থেকে বেলায়েত হোসেন (৭০) নামে এক বৃদ্ধ রোগী নিখোঁজের দুই দিন পর নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করেছে গোপালপুর থানা পুলিশ।

বুধবার (১ জুন) সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পেছনে বৈরণ নদীতে থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বেলায়েত হোসেন উপজেলার সূতী পলাশ গ্রামের মৃত হাতেম আলীর ছেলে। তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। উত্তর পাথালিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরে বসবাস করতেন সে।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, বেলায়েত হোসেন ২০০৬ সালে পানি উন্নয়ন বোর্ড থেকে অবসরের পর ক্যানসার আক্রান্ত হন। সে থেকেই পরিবারের লোকজনদের সাথে দূরত্ব তৈরি হয়।

এরপর তিন বছর যাবত নিজ বাড়ি ছেড়ে উপজেলার উত্তর পাথালিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘরে নিঃসঙ্গ জীবনযাপন করতেন। গত শুক্রবার (২৭ মে) জ্বর ও পেট ব্যথা নিয়ে তিনি গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন।

পরে রবিবার (২৯ মে) হাসপাতাল থেকে তিনি উধাও হয়ে যান। স্বজনরা তাকে খোঁজাখুঁজি করেও বরে আর পাননি। নিখোঁজের দুই দিন পর আজ বুধবার হাসপাতালের পাশে বৈরাণ নদী থেকে মরদেহ ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে গোপালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন বলেন, সকালে স্থানীয়রা বৈরাণ নদীতে ভাসমান অবস্থায় মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে অজ্ঞাত অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

তিনি আরও বলেন, পরে দুপুরে পিবিআই ও সিআইডি পুলিশ মরদেহের আলামত সংগ্রহ করে পরিচয় শনাক্ত করতে সক্ষম হন। পরে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap