১১ হাজার ৭৬৯ জন শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ এনটিআরসিএ’র

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ দেশের বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শূন্য পদের বিপরীতে প্রায় ১১ হাজার ৭৬৯ জন শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে। বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি ও ওয়েটিং লিস্ট থেকে এ শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ করা হয়েছে।

রোববার (৫ জুন) সচিবালয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ ফল প্রকাশ করেন।

এতে দেখা যায়, বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) কর্তৃক প্রকাশিত বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি ২০২২-এর আওতায় ১৫ হাজার ১৬৩ টি শূন্য পদে নিয়োগ সুপারিশের জন্য এবং ৩য় গণবিজ্ঞপ্তির আওতায় নিয়োগ সুপারিশের পর যে সব পদে কেউ যোগদান করেনি বা পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরম দাখিল করেনি এরুপ ৩ হাজার ৭৮১ টি পদে প্রার্থী নির্বাচন করা হয়েছে।

এনটিআরসিএ’র ৩য় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির আওতায় যে সব পদে কেউ আবেদন করেনি এরুপ ১৫ হাজার ১৬৩টি শূন্য পদে নিয়োগ সুপারিশ প্রদানের লক্ষ্যে গত ৬ ফেব্রুয়ারি বিশেষ গণ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। তার প্রেক্ষিতে ৩ লাখ ৪৩হাজাএ ৪০৭ টি আবেদন পাওয়া যায়। এই আবেদনসমূহ টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর সফটওয়্যারের মাধ্যমে মেধা ও চাহিদা অনুযায়ী যাচাই বাছাই করা হয়।

জানা গেছে, মোট ৮ হাজার ৩৫৯ জনের আবেদন পাওয়া গেছে। তার মধ্য থেকে মেধা ও চাহিদার ভিত্তিতে ৪ হাজার ৭৫২ জন প্রার্থীকে নিয়োগ সুপারিশের জন্য নির্বাচন করা হয়। নির্বাচিত প্রার্থীদের পুলিশ/ নিরাপত্তা ভেরিফিকেশনের পরে নিয়োগ সুপারিশ করা হবে।

একই সঙ্গে এনটিআরসিএ কর্তৃক ৩য় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির আওতায় নির্বাচিত ৩৪ হাজার ৭৩ জন প্রার্থীর মধ্যে নিয়োগ সুপারিশের পর যে সব পদে কোনো প্রার্থী যোগদান করেনি অথবা পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরম দাখিল করেনি এরুপ ৭ হাজার ১৭ টি পদে বিধি এবং মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওয়েটিং লিস্ট থেকে দ্বিতীয় মেধাধারীকে নির্বাচন করা হয়েছে।

নির্বাচিত ৭ হাজার ১৭ জন প্রার্থীর মধ্যে এমপিও পদ ৬২০৫ টি এবং ননএমপিও পদ ৮১২ টি। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের আওতায় পদ ৪ হাজার ৫৩৯টি এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের আওতায় পদ ২ হাজার ৪৭৮টি। এ সকল নির্বাচিত প্রার্থীদেরও পুলিশ/ নিরাপত্তা ভেরিফিকেশনের পরে নিয়োগ সুপারিশ প্রদান করা হবে।

নিয়োগ সুপারিশ প্রদানের লক্ষ্যে এনটিআরসিএ থেকে গত ৩০ মার্চ ২০২১ তারিখে ৩য় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। উক্ত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ৫৪ হাজার ৩০৪ টি শূন্য পদের মধ্যে ৩৮ হাজার ২৮৩ জন প্রার্থীকে প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করা হয়। ১৫ হাজার ১৬৩টি পদে কোন আবেদন না পাওয়ায় প্রার্থী নির্বাচন করা সম্ভব হয়নি।

নির্বাচিত প্রার্থীদের পুলিশ/নিরাপত্তা ভেরিফিকেশনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রার্থীদের নিকট থেকে প্রাক নিয়োগ জীবন বৃত্তান্ত যাচাই সংক্রান্ত ভি আর ফরম সংগ্রহ করা হয়। প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের মধ্য হতে মোট ৩৪ হাজার ৭৩ জন প্রার্থী ভি আর ফরম প্রেরণ করেন।

গত ২০শে জানুয়ারি উল্লিখিত নির্বাচিত ৩৪ হাজার ৭৩ জন প্রার্থীকে নিয়োগ সুপারিশ প্রদান করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap