সখীপুরে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার দুই জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের সখীপুরে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে দল বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়া দুই আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় টাঙ্গাইলের সিনিয়র সহকারী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. আকরামুল ইসলামের আদালতে তাঁরা জবানবন্দি দেন। আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) মো. শাহআলম বিষয়টি আজ সোমবার সকালে নিশ্চিত করেছেন।

আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়া আসামিরা হলেন উপজেলার জিতাশ্বরী গ্রামের নাইস আহমেদ (২১) ও হামিদপুর গ্রামের ফরহাদ হোসেন (২২)। গত শনিবার দুপুরে তাঁদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত শুক্রবার রাতে উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে সাগর আহমেদ (২২) নামের এক তরুণ ফুসলিয়ে ঘর থেকে বের করে পাশের একটি জঙ্গলে নিয়ে যান। সেখানে সাগরসহ আরও কয়েকজন ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন।

একপর্যায়ে মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ধাওয়া করে দুজনকে আটক করলেও সাগর আহমেদ পালিয়ে যান। শনিবার সকালে বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করার জন্য এলাকাবাসী সালিস বৈঠক করেন। কিন্তু মীমাংসা না হওয়ায় আটক দুই তরুণকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। রাতে ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে সাগরসহ তিনজনকে আসামি করে সখীপুর থানায় ধর্ষণের মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) ও সখীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন বলেন, মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া দুই তরুণ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। প্রধান আসামি সাগর আহমেদকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap