সখীপুরে ইউএনও’র নাম ভাঙিয়ে চাঁদা দাবি করায় এক যুবক আটক

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের সখীপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) নাম ভাঙিয়ে চাঁদা দাবি করায় এক যুবককে আটক করা হয়েছে।

আটক হওয়া ওই যুবকের নাম মো. শুভ। তিনি সখীপুর পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। গতকাল সোমবার সকালে উপজেলার কচুয়া এলাকার লোকজন তাঁকে আটক করে লিখিত অভিযোগ দিয়ে উপজেলা প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, মো. শুভ নামের ওই যুবক গত রোববার রাতে উপজেলার কচুয়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের জসীম উদ্দীনের বাড়িতে যান।

ওই বাড়িতে তিনি ইউএনও অফিসের চাকরিজীবী পরিচয় দিয়ে বলেন, বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে তাঁকে ওই বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। এ সময় তিনি বাড়ির লোকজনদের হুমকি দিয়ে বলেন, ‘এ বাড়িতে বাল্যবিবাহ সম্পন্ন হয়েছে, ভ্রাম্যমাণ আদালত দেওয়া হলে দুই থেকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা করা হবে।

আমার মাধ্যমে সমঝোতায় গেলে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকায় সমাধান করে দেব।’ রোববার রাতে টাকা আদায় করতে না পেরে মো. শুভ গতকাল সকালে আবার ওই বাড়িতে গিয়ে টাকার জন্য হুমকি দেন। এ সময় বাড়ির লোকজন তাঁর কাছে পরিচয়পত্র চাইলে তিনি টালবাহানা শুরু করেন। পরে তাঁকে আটক করে উপজেলা প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ইউএনও ফারজানা আলম বলেন, ওই যুবকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তাঁকে সখীপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, মো. শুভ নামের ওই যুবকের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap