ভূঞাপুরে ভিজিএফের চালে বড় বড় পাথর

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে হতদরিদ্রদের মাঝে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় বিতরণ করা ১০ কেজি চালে বড় বড় পাথর পাওয়া গেছে। এছাড়া চালগুলো থেকে দুর্গন্ধও বের হচ্ছিল বলে চাল নিতে আসা অসহায় মানুষজন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার (০৫ জুলাই) ভূঞাপুর পৌরসভায় ভিজিএফ কর্মসূচির চাল বিতরণের সময় বেশ কিছু বস্তাতে পাথর পাওয়া যায়।

এরপর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে পাথরযুক্ত চালের বস্তাগুলো পরিবর্তনের আশ্বাস দেওয়া হয়। এ ছাড়াও পোকা ও নিম্নমানের চাল দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলা খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) আব্দুল হালিম জানিয়েছেন, চালে পাথর পাওয়ার পরই বস্তাগুলো পরিবর্তনের জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তবে চালে এমন পাথর থাকতেই পারে। চাল যে চাতালগুলোতে শুকানো হয়, সেখানকার পাথরগুলোই চালে মিশেছে।

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কার্যালয়ের খাদ্য পরিদর্শক কাজী হামিদুল হক জানিয়েছেন, হতদরিদ্রদের মাঝে বিতরণের জন্য ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় ছয়টি ইউনিয়নে ১০২ টন ও পৌরসভায় ৩০ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এই চালের বস্তাগুলো গত বছর গোডাউনে মজুত করা হয়েছিল।

এছাড়া মৌসুমটায় চালে পোকা ধরে। পোকা দমনে ওষুধ দেওয়া হচ্ছে। আজ মঙ্গলবার পৌরসভায় চালগুলো বিতরণের সময় বেশ কিছু বস্তাতে পাথর পাওয়া গেছে। পরে সেগুলো পরিবর্তন করে দেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে ভূঞাপুর পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুদুল হক মাসুদ বলেন, চাল বিতরণের সময় বেশ কিছু বস্তাতে পাথর পাওয়া যায়। পরে সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। বস্তাগুলো পরিবর্তন করে দেওয়ার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. ইশরাত জাহান জানান, পাথরযুক্ত চালের বস্তাগুলো পরিবর্তন করে দেওয়ার জন্য খাদ্য পরিদর্শককে জানানো হয়েছে। কেন চালে পাথর পাওয়া গেল, সেটি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap