সখীপুরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে পণ্ড

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ফারজানা আলমের হস্তক্ষেপে পূর্ণিমা আক্তার(১৫) নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার কাকড়াজান ইউনিয়নের হেংগারচালা গ্রামে গিয়ে এ বিয়ে পণ্ড করা হয়। পূর্ণিমা ওই গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে এবং মোন্তাজনগর আবাসিক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মানবিক শাখার চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থী। জানা যায়, পূর্ণিমার সাথে তার মামাতো ভাই ঘাটাইল উপজেলার ধলাপাড়া গ্রামের রনি আহম্মেদের বিয়ের প্রস্তুতি চলছিলো। শুক্রবার দুপুরে গোপনসংবাদ পেয়ে ইউএনও উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মনসুর আহম্মেদকে ওই বাড়িতে  পাঠালে বাল্য বিয়ের আয়োজনের সততা পায়। পরে তিনি উপজেলা নিবার্হী অফিসারের নির্দেশে পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেন। এ ব্যাপারে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মনসুর আহম্মেদ বলেন,  সংবাদ পেয়ে ওই শিক্ষার্থীর বাড়িতে গিয়ে দেখি বিয়ের আয়োজন দেখতে পেয়ে ইউএনও স্যারের নির্দেশে বিয়েটি বন্ধ করে দেই।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ফারজানা আলম বলেন, অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে বাল্যবিয়েটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap