ঘাটাইলে বউ চলে যাওয়ায় ঘটককে কুপিয়ে হত্যা আটক যুবক

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে বউ চলে যাওয়ায় ঘটককে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক যুবক। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার দিগড় ইউনিয়নের মাইধারচালা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি একই গ্রামের মৃত আহসান সিকদারের ছেলে আবদুল জলিল (৬০)। এ ঘটনায় অভিযুক্ত আলমাসকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
স্থানীয়রা জানায়, মাইধারচালা গ্রামের শহিদুলের ছেলে আলমাস স্থানীয় একটি করাত কলে (স’,মিল) কাজ করেন।
আবদুল জলিল ২০১৯ সালে রসুলপুর ইউনিয়নের প্যাঁচার আটা গ্রামের আলমাসকে বিয়ের ঘটকালি করেন। সে ঘরে একটি কন্যা সন্তান আছে। সেই বউয়ের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয় গেল বছর। এ নিয়ে আলমাসের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে নামাজ শেষ করে আব্দুল জলিল আলমাসের দাদী রাহাতন বেগমের ঘরে পান খেতে বসেন। এ সময় আলমাস ঘরে ঢুকে বউ এনে দেয়ার কথা বলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় ও গলায় কোপ দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। পরে আলমাস পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে ঘাটাইল থানার ওসি আজহারুল ইসলাম সরকার বলেন, বউ চলে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে আব্দুল জলিলকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আলমাসকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
ঘাটাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজহারুল ইসলাম সরকার পিপিএম এর নেতৃত্বে এসআই বাবুল এবং এএসআই সুমন সরকার আলমাসকে ছামানাবাজার এলাকা হতে গ্রেফতার করেন। আসামীর জবানবন্দী নিয়ে আলমাসের নানির বাড়ি বাগলেরপাড়া থেকে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap