গোপালপুরে ছাত্রীকে অপরহণ করে ধর্ষণ মামলায় এক জনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের মামলায় একজনকে দুটি ধারায় আলাদাভাবে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

বুধবার (৯ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামির নাম আলমগীর হোসেন (৩৬)। তিনি জেলার গোপালপুর উপজেলার ভুটিয়া গ্রামের আবু হানিফের ছেলে। বর্তমানে তিনি পলাতক।

টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট আলী আহমেদ জানান, ভুক্তভোগী একটি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন। ২০০৮ সালের ৭ সেপ্টেম্বর সকালে ওই শিক্ষার্থী স্কুলে যায় । সেখান থেকে তাকে অপহরণ করেন আলমগীর হোসেন। পরে ওই শিক্ষার্থীকে নিজের মামার বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন আলমগীর হোসেন। ঘটনার পরদিন ৮ সেপ্টেম্বর ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে গোপালপুর থানায় মামলা করেন। ২০০৮ সালের ১৮ ডিসেম্বর আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ৭ ধারা এবং ৯(১) ধারায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। ওই দুটি ধারায় আলাদাভাবে আসামিকে সাজা প্রদান করেন আদালত। তবে উভয় অপরাধের সাজা একত্রে চলবে বলে বিচারক তার রায়ে উল্লেখ করেন।

তিনি আরো জানান, আসামি হাজতবাসের পর জামিনে মুক্তি পেয়ে গা ঢাকা দেন। আদালতে আসামির অনুপস্থিতিতেই রায় পড়ে শোনান বিচারক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap