সরকার নৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে-জোনায়েদ সাকি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেছেন, সরকার নৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। বিএনপির সমাবেশকে বাধা দেওয়ার জন্য সরকার পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছে। প্রায় হরতালের পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। ক্ষমতায় টিকে থাকতে সরকার সর্বব্যাপী আক্রমণের প্রস্তুতি নিয়েছে। কিন্তু এভাবে ক্ষমতা টিকিয়ে রাখা যাবে না। এছাড়া সরকার পদে পদে আমাদের বাধা দিয়েছে, হামলা করেছে। যাদের ওপর হামলা করা হয়েছে তাদের নামেই আবার মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকার কেবল যে বিরোধীদলের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে সেটি নয়। নিজ দলের সদস্য ও সারাদেশের মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। মানুষ এবার নাগরিক মর্যাদার লড়াইয়ে নেমেছে। সরকার এই গণজোয়ার থামাতে পারবে না।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) দুপুরে মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে টাঙ্গাইল শহরের সন্তোষে তার মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক বলেন, সরকার নৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। বিএনপির সমাবেশকে বাধা দেওয়ার জন্য সরকার পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছে। প্রায় হরতালের পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। ক্ষমতায় টিকে থাকতে সরকার সর্বব্যাপী আক্রমণের প্রস্তুতি নিয়েছে। কিন্তু এভাবে ক্ষমতা টিকিয়ে রাখা যাবে না।

আগামী ১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ প্রসঙ্গে জোনায়েদ সাকি বলেন, ১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ ঠেকানোর জন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে। একটি যুগপৎ ধারায় অভিন্ন লক্ষ্যে আন্দোলন পরিচালনা করতে হবে। এতে সকল দলের সঙ্গে আলোচনা করে সরকার পতন, পদত্যাগ, অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের অধীন নির্বাচন এবং সংবিধান সংস্কার করে শাসন ব্যবস্থার মধ্যে জবাবদিহিতা এবং ক্ষমতার ভারসাম্য তৈরি করার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। সেক্ষেত্রে সাত দফার প্রস্তাব উত্থাপন করেছি।

এসময় রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য মনির উদ্দীন পাপ্পু, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য বাচ্চু ও জুলহাসনাইন বাবুসহ সংগঠনের কেন্দ্রীয় এবং টাঙ্গাইলের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap