September 29, 2020, 12:39 pm

ভূঞাপুরে যৌতুকের দায়ে গৃহবধু হত্যা মামলায় স্বামী ও শ্বশুরের মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত

স্টাফ রিপোর্টারঃ টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলায় যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ তাছলিমা আক্তারকে হত্যার দায়ে স্বামী জহিরুল ইসলাম ও শ্বশুর মো. মজনুকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইল জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন এই আদেশ দেন। রায়ে মৃত্যুদণ্ড ছাড়াও প্রত্যেক আসামিকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিই পলাতক।

টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি নাসিমুল আক্তার জানান, ২০১৪ সালে ভূঞাপুর উপজেলার ডিগ্রিরচর কুঠির বয়রা গ্রামের খন্দকার তছলিম উদ্দিনের মেয়ে তাছলিমা আক্তারের সঙ্গে একই উপজেলার অর্জুনা গ্রামের মো. মজনুর ছেলে জহিরুল ইসলামের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দেওয়া হয়। পরে তাছলিমার বাবার কাছে সিএনজি অটোরিকশা কেনার জন্য ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে জহিরুল ও তার পরিবার। এই টাকা দিতে পারেনি তাছলিমার বাবা।

২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর জহিরুল ইসলাম মোবাইলে শাশুড়ি রাবেয়া বেগমকে জানান, কাউকে কিছু না বলে তিন দিন আগে তাছলিমা বাড়ি থেকে চলে গেছে। পরে তাকে না পেয়ে রাবেয়া বেগম ভূঞাপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরের দিন বিকেলে যুমনার তীর থেকে তাছলিমার লাশ উদ্ধার করা হয়।

আদালতে আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন ফায়েদুজ্জামান নাজির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap