মধুপুরের প্রথম অনলাইন সংবাদপত্র

মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১:৪৫ অপরাহ্ন

First Online Newspaper in Madhupur

শিরোনাম :
মির্জাপুরে ভাঙনের কবলে ধর্মীয় স্থাপনাসহ শতাধিক বসতবাড়ি কালিহাতীতে প্রেমিকার আত্মহত্যার ঘটনায় দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ টাংগাইলের চামড়া ব্যবসা চলে গেছে দানের খাতায় টাংগাইলে খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল মাভিপ্রবিতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন টাঙ্গাইলে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আওয়ামীলীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপন গোপালপুরে আওয়ামীলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ভূঞাপুরে আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ঘাটাইলে বনের জমি দখল করে ভূঁইয়াদের রাজত্ব ঘাটাইলে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করায় জরিমানা

টাংগাইলে খেলোয়ারদের জন্য তৈরী জিমনেশিয়ামটি র‌্যাবে ক্যাম্প

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৪৫ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের একমাত্র জিমনেশিয়ামটি স্থানীয় ক্রীড়াবিদদের জন্য ইনডোর গেমসের জন্য তৈরি করা হয়েছিল। একসময় অ্যাথলিটদের কর্ম উদ্দীপনায় মুখর থাকত এই জিমনেশিয়াম। তবে, বিভিন্ন ইনডোর গেম, ভলিবল, বাস্কেটবল, হ্যান্ডবল, ব্যাটমিন্টন, জিমন্যাস্ট এবং বডি বিল্ডারদের জন্য জেলার এই একমাত্র সুবিধাটি এখন আর তার আসল উদ্দেশ্যে ব্যবহার হচ্ছে না। গত ১৮ বছর ধরে স্থাপনাটিকে ক্যাম্প হিসেবে ব্যবহার করছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। র‌্যাব-১৪ এর ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি (সিপিসি)-৩ এর সদস্যদের জন্য ভবন এবং এর প্রাঙ্গণটি ব্যবহৃত হচ্ছে।

জেলা ক্রীড়া সংস্থা সূত্রে জানা যায়, শরীরচর্চা, জিমন্যাস্টিক, ভারোত্তলন, ব্যাডমিন্টন, ভলিবল, জুডো, কারাতে প্রশিক্ষণ ও অনুশীলনের জন্য টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামের সামনে বিগত ১৯৮৪ সালে নির্মিত হয় জিমনেশিয়ামটি। স্থানীয় প্রশাসনের অনুরোধে বিগত ২০০৬ সালে র‌্যাব-১২ এর ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানির সদস্যদের বাসস্থানের সংকট মেটাতে অস্থায়ীভাবে ভবনটি ব্যবহারের অনুমতি দেয় টাঙ্গাইল জেলা ক্রীড়া সংস্থা। এরপর থেকে র‌্যাব সদস্যরা জিমনেশিয়াম ভবন এবং এর জায়গাটি ব্যবহার করে আসছে। বর্তমানে ভবনটিতে র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-৩ এর শতাধিক সদস্য ও কর্মকর্তা অবস্থান করছেন বলে ক্যাম্প সূত্রে জানা গেছে।

জানা যায়, জেলা ক্রীড়া সংস্থা ভবনটি ছেড়ে দিতে একাধিকবার চিঠি দিলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। টাঙ্গাইল জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মির্জা মাইনুল হোসেন লিন্টু বলেন, ভবনটি ফিরে পেতে আমি স্থানীয় প্রশাসনকে চিঠি দিয়েছি একাধিকবার। এজন্য ক্রীড়া সংস্থার সভার রেজুলেশনে উল্লেখ্য রয়েছে। আমার আগে যারা ক্রীড়া সংস্থার দায়িত্বে ছিলেন তারাও একাধিকবার চিঠি দিয়েছেন। কিন্তু ফল কিছু হয়নি। তিনি আরও জানান, কোনো ধরনের আলাপ-আলোচনা ছাড়াই ওই ভবনের ভেতরে কক্ষসহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ করেছে র‌্যাব। একমাত্র ইনডোর স্পোর্টস সুবিধা ব্যবহার করা থেকে দীর্ঘদিন ধরে বঞ্চিত থাকায় স্থানীয় তরুণ ও ক্রীড়াবিদদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে।

কারাতে ব্ল্যাক বেল্টধারী শফিকুল ইসলাম লাভলু, মাসুদ রুবেল, সৈয়দ তানজিজুল আজিজসহ একাধিক খেলোয়ার অভিযোগ করে বলেন, তারা আগে জিমনেশিয়ামটিতে কারাতে অনুশীলন করতেন। কিন্তু র‌্যাবকে ব্যাবহার করতে দেওয়ায় তাদের অনুশীলন বন্ধ হয়ে আছে। এখন শহরের আর কোথাও অনুশীলনের ব্যবস্থা নেই বলে জানান তারা।

জেলার একাধিক ক্রীড়া সংগঠকের অভিযোগ, ইনডোর সুবিধাটি ব্যবহার করতে না পারায়, বর্ষাকালে ফুটবলার, ক্রিকেটারসহ বিভিন্ন ক্রীড়াবিদরা নিজেদের ফিট রাখতে শরীরচর্চা করা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। ব্যাডমিন্টন খেলোয়ার শামীম আল মামুন বলেন, জনগণের নিরাপত্তায় দায়িত্বপালনকারী র‌্যাব সদস্যদের জন্য আবাসন ব্যবস্থা থাকতেই হবে। তবে তাদের জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন আধুনিক ক্যাম্প থাকা দরকার। এরপরও যদি জিমনেশিয়ামটিতেই তাদের রাখতে হয় তবে স্থানীয় ক্রীড়াবিদদের জন্য অনতিবিলম্বে নতুন একটি ইনডোর সুবিধা নির্মাণ করে দেওয়ার দাবি জানাই,’ বলেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-৩ এর কমান্ডার মেজর মনজুর মেহেদী ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমাদের বলার কিছু নেই। এটি সরকারের ব্যাপার।

যোগাযোগ করা হলে র‌্যাব-১৪ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মহিবুল ইসলাম খান সাংবাদিকদের বলেন, টাঙ্গাইলে র‌্যাব ক্যাম্প নির্মাণের জন্য সরকারের কাছে প্রস্তাব দেওয়া আছে। বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
©2024 All rights reserved
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102
Verified by MonsterInsights