মধুপুরের প্রথম অনলাইন সংবাদপত্র

শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০৯:৪৭ অপরাহ্ন

First Online Newspaper in Madhupur

শিরোনাম :
ঘাটাইলে কাভার্ডভ্যানের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে দুইজন নিহত ২৪ ঘন্টায় বঙ্গবন্ধু সেতুতে তিন কোটি টাকার টোল আদায় বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে ১৩ কিমি জুড়ে যানবাহনে ধীরগ‌তি টাঙ্গাইলে খামারিরা প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে গরুর পরিচর্যায় ব্যস্ত সখীপুরে দেশি প্রজাতির বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন ধনবাড়ীতে ঈদ উপলক্ষে ভিজিএফ চাল বিতরণ দেলদুয়ারে মেধাবী শিক্ষার্থীকে স্পন্দনবি বৃত্তি প্রদান গোপালপুরে সন্তানকে হত্যার পর বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করা বাবার মৃত্যু কালিহাতীতে জীবিতকে মৃত দেখিয়ে মেম্বারের শাশুরীর নামে ভাতার কার্ড দেলদুয়ারে ২৯ বছর ধরে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দিয়ে চলছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

ঢাকা-টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধুসেতু মহাসড়কে ঈদযাত্রায় যানজটের শঙ্কা

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১১ জুন, ২০২৪
  • ১৯ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মহাসড়ক ঢাকা-টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক। এবারের ঈদ যাত্রায় এ মহাসড়কে উত্তরের পথে ঈদযাত্রায় যানজটের শঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্ট্যরা। বিশেষ করে মহাসড়কের এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত সাড়ে ১৩ কিলোমিটার যানজটের শঙ্কা করা হচ্ছে। তবে মহাসড়কে যানজট নিরসনে ইতিমধ্যে বিভিন্ন প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন পুলিশ।

বঙ্গবন্ধু সেতু কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঈদ যাত্রায় যাত্রীদের যানজট মুক্ত রাখার জন্য তারা সব রকম পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এদিকে আব্দুল মোমেন গ্রুপ যানবাহন চলাচলের জন্য নতুন করে এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুর ৪ কিলোমিটার মহাসড়ক ব্যবহারের উপযোগী করে গড়ে তুলছেন।

গত ঈদযাত্রায় ৪ এপ্রিল থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সেতুর ওপর ৫৩টি গাড়ি বিকল ও কিছু দুর্ঘটনা ঘটে। যে কারণে শেষ দিকে ঈদ যাত্রায় বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে টাঙ্গাইলের ঘারিন্দা পর্যন্ত প্রায় ৩৫ কিলোমিটার সড়কে তৈরি হয় যানজট।

বিগত তিনটি ঈদকে ঘিরে দেখা যায়, গত বছরে রোজার ঈদে দুর্ঘটনার সংখ্যা ২০টি। একই বছরের কোরবানীর ঈদে দুর্ঘনার সংখ্যা ৫৯টি এবং চলতি গত ঈদুল ফিতরের দুর্ঘটনা সংখ্যা দাড়ায় ৮৩টি। এবারও ঈদযাত্রায় একই শঙ্কায় যাত্রী ও চালকদের। যাত্রী এবং চালকরা বলছেন, এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত সাড়ে ১৩ কিলোমিটার রাস্তার কাজ এখনো ভোগাচ্ছে। তাই সড়কে নজরদারি বাড়ানোর দাবি তাদের।

জানা যায়, মহাসড়কে যানজট মুক্ত রাখার জন্য গত ২৬ মে একটি সমন্বয় করেছেন পুলিশ সুপার। প্রতিটি দপ্তরের কাজ আলোচনার মাধ্যমে বন্টন করে দেওয়া হয়েছে। সেটি ইতিমধ্যেই মাঠ পর্যায়ে কাজ চলছে। বড় আশংকা থাকে এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত সাড়ে ১৩ কিলোমিটার মহাসড়ক। এছাড়াও গত কয়েক বছর ধরে উত্তরবঙ্গের যানবাহন একমুখী করে রাখা হয়। সেটি সেতু থেকে ভূঞাপুরের লিংক রোড় দিয়ে এলেঙ্গাতে উঠার জন্য ব্যবস্থা। অপরদিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যানবাহন সরাসরি সেতুতে উঠার ব্যবস্থা করা হয়।

আব্দুল মোমেন লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার মোহাম্মদ মিজান সারোয়ার বলেন, সাড়ে ১৩ কিলোমিটার মহাসড়কের মধ্যে গত ঈদে ৪ কিলোমিটার ব্যবহারের উপযোগী করে দেওয়া হয়। এবারের ঈদেও নতুন করে আরো ৪ কিলোমিটার ব্যবহারের উপযোগী করা হয়েছে। ঈদের আগেই সেটিকে ব্যবহারের উপযোগী করে দেওয়া হবে। ঈদে ঘরমুখী মানুষ এবারে খুব একটা সমস্যা হবে বলে মনে করছে না।

বঙ্গবন্ধু সেতুর সাইট অফিসের নিবার্হী প্রকৌশলী আাহসানুল কবির পাভেল বলেন, সেতু দিয়ে যত ফিটনেসবিহীন যানবাহন কম আসবে, ততই দুর্ঘটনা কম হবে। এতে করে যানজটের সম্ভবনাও কম থাকবে। সেতুর পাশে যত যানবাহন দাঁড়িয়ে থাকবে ততই যানজটের লক্ষন থাকে। এই জন্যই চালকদের সচেতন করে তারা যেন সেতুর টোল ভাঙতির জন্য অপেক্ষা না করতে হয়। এটিকেই নজর দেওয়ার জন্য চালকদের বিশেষ ভাবে দেখা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার বলেন, এবছরে যানজট মুক্ত রাখার জন্য কয়েকটি পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তিনি মনে করেন এবছর বর্যাকাল শুরু হয়েছে। অপরদিকে পশুবাহী ট্রাক ইতিমধ্যেই চলা শুরু করেছে। এর মধ্যে আরেকটি যুক্ত হয়েছে উত্তরবঙ্গে থেকে মৌসুমী ফলের ট্রাকভর্তি গাড়ী ঢাকা দিকে যাচ্ছে। এতে পশু ও মালামাল পরিবহন বৃদ্ধি পেয়েছে। এই পরিবহন চলাচলে নিবিঘœ করা জন্য জেলা পুলিশে ৭ শতাধিক সদস্য পালাক্রমে ২৪ ঘন্টা দায়িত্ব পালন করবে।

এছাড়াও বৃষ্টিসহ প্রাকৃতি দুর্যোগে যাতে পুলিশ মাঠে থাকে সে ব্যবস্থাও গ্রহন করা হয়েছে। সেতুটির উপর কোন যানবাহন সমস্যা দেখা দিলে কিভাবে সেই যানবাহনকে অতি তাড়াতাড়ি রিমুভ করা যায় তা গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। ঈদুল আযাহায় মাটিবাহী ট্রাক ও কম গুরুত্বপূর্ণ পণ্যবাহী যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। এছাড়াও রাস্তার পাশে পশুর হাট যেখানে যেখানে আছে সেটিকে রাস্তা থেকে দূরে বসানোর নির্দেশে দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
©2024 All rights reserved
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102
Verified by MonsterInsights